বুধবার , ২১ অগাস্ট ২০১৯
  • হোম » আইন আদালত » ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী নিহতের ঘটনায় উবার চালক আটক


ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী নিহতের ঘটনায় উবার চালক আটক





অনলাইন ডেস্ক

উবার চালক সুমন রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে সড়ক দুর্ঘটনায় ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ফাহমিদা হক লাবণ্য (২১) নিহতের ঘটনায় সুমন হোসেন নামের সেই উবার মোটরসাইকেল চালককে আটক করেছে পুলিশ।

শুক্রবার মোহাম্মদপুরের নবীনগর হাউজিংয়ের একটি বাসা থেকে তাকে আটক করা হয়। ওই বাসার নিচতলার গ্যারেজ থেকে মোটরসাইকেলটি (ঢাকা মেট্রো হ ৩৬-২৩৫৮) উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শেরেবাংলা নগর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবুল কালাম আজাদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ‘এ ঘটনার পর থেকে উবার মোটরবাইক চালক সুমনকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিলো না। নিহতের মোবাইলে তার যে ফোন নম্বরটি ছিল সেটি বন্ধ পাওয়া যাচ্ছিলো। পরে অভিযান চালিয়ে মোহাম্মদপুর এলাকা থেকে উবার চালক সুমনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয় এবং মোটরসাইকেলটি উদ্ধার করা হয়।’

তিনি বলেন, ‘উবার চালক সুমনও ওই ঘটনায় আহত হন। তার বাম পা ও শরীরের বিভিন্ন জায়গায় ব্যথা ছিল। তিনি বর্তমানে পুলিশি হেফাজতে সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।’

আটক সুমনকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের ভিত্তিতে ডিএমপির তেজগাঁও বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) বিপ্লব কুমার সরকার বলেন,
‘বৃহস্পতিবার (২৫ এপ্রিল) সকাল ১০ টা ৩৬ মিনিটে রাজধানীর কলেজ গেটে অবস্থানকালে পাঁচ মিনিটের দূরত্বে অবস্থানকারী একজন উবার ইউজারের রিক্যুয়েস্ট পেয়ে সুমন তাকে ফোন দেন। উবার ইউজার লাবণ্য খিলগাঁও ছায়াবীথি মসজিদের সামনে যেতে চান জানিয়ে সুমনকে শ্যামলীর ৩ নং রোডের ৩১ নং বাসার সামনে যেতে বলেন। উবার চালক সুমন নির্ধারিত বাসার সামনে থেকে শিক্ষার্থী লাবণ্যকে নিয়ে যাচ্ছিলেন। পথে জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের কাছাকাছি পৌঁছলে মোটরসাইকেলের সামনে দিয়ে একজন লোক দৌড়ে সড়ক পার হচ্ছিলেন। এই দেখে উবার চালক হঠাৎ মোটরসাইকেলের গতিরোধ করেন। এতে পেছনে বসে থাকা শিক্ষার্থী লাবণ্য বাইকের ডানপাশে ছিটকে পড়ে যান। এমন সময় একটি কাভার্ড ভ্যান পেছন থেকে লাবণ্যকে ধাক্কা দেয়।’

তিনি বলেন, ‘এ ঘটনায় শেরেবাংলা নগর থানায় একটি মামলা করা হয়েছে। বাইক চালক সুমনের বক্তব্যের সত্যতা যাচাইয়ের পাশাপাশি চালক হিসেবে তার অবহেলা বা ইচ্ছাকৃত ভুল ছিল কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। মোটরবাইকটি কেনার সময় এবং উবার চালক হিসেবে রেজিস্ট্রেশনের সময় তিনি যে ঠিকানা ব্যবহার করেছিলেন তা সঠিক ছিল না। একই সঙ্গে কাভার্ড ভ্যানটির চালককে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।’

প্রসঙ্গত, নিহত ফাহমিদা হক লাবণ্য (২১) ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং (সিএসই) বিভাগের ৩য় বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন। দুর্ঘটনার পর পথচারীরা লাবণ্যকে উদ্ধার করে শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।



প্রকাশক ও সম্পাদক : শাহিন রহমান

অফিস : ১১৪ নাখালপাড়া, ঢাকা-১২১৫
Email : prothomshomoy@gmail.com