মঙ্গলবার , ১১ ডিসেম্বর ২০১৮


নয়াপল্টনের ঘটনা জানতে পুলিশকে চিঠি দিচ্ছে ইসি





নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপি কার্যালয়ের সামনে গত ১৪ নভেম্বর মনোনয়ন ফরম বিক্রির সময় পুলিশের সঙ্গে দলটির নেতাকর্মীদের সংঘর্ষের ঘটনার প্রকৃত তথ্য জানাতে পুলিশের মহাপরিদর্শকের (আইজিপি) কাছে চিঠি পাঠাচ্ছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। চারদিন আগে সংঘটিত ওই সংঘর্ষটির আসলে কী হয়েছিল তা জানাতে তথ্য এবং প্রমাণাদিসহ প্রতিবেদন দাখিল করতে ওই চিঠিতে নির্দেশ হচ্ছে। রোববার চিঠিটি আইজিপির দপ্তরে পাঠানো হতে পারে বলে জানিয়েছেন ইসি সংশ্লিষ্টরা।

ইসি সূত্রে জানা গেছে, নয়াপল্টনে সংঘর্ষের ঘটনায় পুলিশের মহাপরিদর্শককে দেয়ার জন্য গত বৃহস্পতিবারই একটি চিঠি চূড়ান্ত করা হয়। ওই চিঠিতে বিএনপি কার্যালয়ের সামনে সংঘর্ষের ঘটনা তদন্ত করতেও পুলিশকে নির্দেশনা দেয়া হয়। একইসঙ্গে নিরাপরাধী কাউকে হয়রানি না করতে নির্দেশনা দেয়া আছে এতে।

চিঠিতে উল্লেখ করা হয়, বিএনপি কার্যালয়ের সামনে সংঘর্ষের ঘটনায় বিভিন্ন গণমাধ্যমে ধারণকৃত ভিডিও ফুটেজ ও অন্যান্য তথ্য প্রমাণাদিসহ একটি প্রতিবেদন পাঠানোর জন্য অনুরোধ করা হয়েছে। তবে ঘটনার সঙ্গে সরাসরি সংশ্লিষ্ট নয় এমন কাউকে হয়রানি না করতে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি এ ঘটনায় নিরাপরাধ ব্যক্তিকে কোনো মামলায় জড়িয়ে নির্বাচনী পরিবেশ যাতে নষ্ট করতে না পারে সেদিকে দৃষ্টি রাখার নির্দেশনার বিষয়টিও রাখা হয়েছে চিঠিতে।

চিঠির নির্দেশনায় বলা আছে, গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী গত ১৪ নভেম্বর বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে দলীয় মনোনয়নপত্র সংগ্রহ ও জমাদানকালে লোক সমাগমে রাস্তায় যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। পুলিশ রাস্তায় যানচলাচল পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখার পদক্ষেপ গ্রহণ করে। এ নিয়ে মিছিলে অংশগ্রহণকারীদের সাথে পুলিশের সংঘর্ষ হয়। উচ্ছৃঙ্খল লোকজন কয়েকটি গাড়ি ভাঙচুর করে এবং পুলিশের দুইটি গাড়িতে অগ্নিসংযোগ করে। এতে কর্তব্যরত পুলিশসহ অনেকে আহত হয়। এ বিষয়ে ধারণকৃত স্থিরচিত্র, ভিডিও ফুটেজ ও অন্যান্য তথ্য প্রমাণাদিসহ একটি প্রতিবেদন পাঠানোর জন্য নির্বাচন কমিশন নির্দেশনা প্রদান করেছেন।

কমিশনের নির্বাচন ব্যবস্থাপনা শাখার উর্দ্ধতন একজন কর্মকর্তা এ বিষয়ে বলেন, আজই (রোববার) নয়াপল্টনের ঘটনার বিষয়ে পুলিশের মহাপরিদর্শককে চিঠি পাঠানোর সম্ভবনা রয়েছে।

উল্লেখ্য, পল্টনের ঘটনার পর গত ১৬ নভেম্বর প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কেএম নূরুল হুদা বরাবর একটি চিঠি পাঠিয়েছে বিএনপি। যেখানে বলা হয়েছে, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর দলের ৪৭২ জন নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।



প্রকাশক ও সম্পাদক : শাহিন রহমান

অফিস : ১১৪ নাখালপাড়া, ঢাকা-১২১৫
Email : prothomshomoy@gmail.com