বুধবার , ১৪ নভেম্বর ২০১৮
  • হোম » রাজনীতি » সংলাপে গিয়ে নিজের বাড়ি ফেরত চাইলেন ব্যারিস্টার মওদুদ


সংলাপে গিয়ে নিজের বাড়ি ফেরত চাইলেন ব্যারিস্টার মওদুদ





বিশেষ প্রতিনিধি : বুধবার ঐক্যফ্রন্টের সংলাপের দ্বিতীয় দিনে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বারবার প্রধানমন্ত্রীর কাছে ব্যক্তিগত কথা বলার জন্য স্পেস চান। অনাকটা বিরক্ত হয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘এই মওদুদ সাহেব ওয়ান-ইলেভেনের সময় জেলে ছিলেন। আবারো জেলে যেতে চান?’

মওদুদ বলেন, ‘নেত্রী, একটা স্পেস চাই।’ তখন প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘এমন কোনো স্পেস দেব না যে অন্ধকারের লোকরা আবার আসতে পারে। অন্ধকারের লোকদের আমি আসতে দেব না। লখিন্দরের বেহুলার ছিদ্র আমি আর রাখব না। জেলে যাওয়ার শখ হলে ওগুলো নিয়ে থাইকেন। আমি জানি সহিংসতা কিভাবে মোকাবেলা করতে হয়, সেটা আমি ২০১৩-১৪ সালে বুঝেছি।’

এ সময় মওদুদ বলেন, ‘না, নেত্রী আমি ঠিক করেছি আর কোথাও যাব না। শুধু চাই একটা স্পেস।’ স্পেস নিয়েই ব্যারিস্টার মওদুদ প্রধানমন্ত্রীকে বলেন, ‘আমার বাড়িটা নিয়ে গেলেন কেন নেত্রী?’ জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বাড়িটা নেয়া হতো না। আপনি জালিয়াতি করতে গেছেন কেন? আদালত বলেছে, আপনাদের বাড়ি না। বাড়িটা যদি আপনি কবি জসীমউদ্‌দীনের মেয়ের নামে লিখে দিতেন, তাহলে আমি কিছুই করতাম না। আপনি বাড়ি নিয়ে দিছেন আপনার ভাইয়ের নামে। আমাদের ফরিদপুরের মেয়ের নামে দিলে কিন্তু আমি এটা নিয়ে নাড়াচাড়া করতাম না।’

মওদুদ বলেন, ‘তাহলে আমি এখন তার নামে ফেরত দেব।’ প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘না, না আপনাকে আর বিশ্বাস করা যায় না।’

কথাচ্ছলে ব্যারিস্টার মওদুদ তার বাড়ি ফেরত চাইলেও উপস্থিত ঐক্য ফ্রন্টের নেতারা বিস্মিত হয়ে যান। ফিসফিস করে একে অপরকে বলতে থাকেন, ব্যারিস্টার সাহেবের ধান্দাটা কী? উনি কি রাজনৈতিক সমস্যা সমাধানের জন্য এসেছেন, নাকি নিজের বাড়ি ফেরত নেবার জন্য এসেছেন?



প্রকাশক ও সম্পাদক : শাহিন রহমান

অফিস : ১১৪ নাখালপাড়া, ঢাকা-১২১৫
Email : prothomshomoy@gmail.com