বুধবার , ১৪ নভেম্বর ২০১৮
  • হোম » মাঠে ময়দানে » বিশ্বের দামি গোলরক্ষককে জোড়া গোল দিয়ে নায়ক এক ইলেক্ট্রিশিয়ান


বিশ্বের দামি গোলরক্ষককে জোড়া গোল দিয়ে নায়ক এক ইলেক্ট্রিশিয়ান





ক্রীড়া ডেস্ক : মিলান পাভকভের নামটি লিভারপুল অত মনে না রাখলেও সার্বিয়ান ফুটবল ক্লাব রেড স্টার বেলগ্রেডের সমর্থকরা আজীবনই মনে রাখবেন। পাভকভের নায়কোচিত পারফরম্যান্সের কারণেই ২১ বছর পর চ্যাম্পিয়ন্স লিগে জয় পেল একবারের চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ী ক্লাবটি। তবে সব ছাপিয়ে এক ইলেক্টিশিয়ানের নায়ক হওয়ার গল্পই এখন ফুটবলপাড়ার সবার মুখে মুখে।

২২ বছর বয়সেও অপেশাদার একজন ফুটবলার ছিলেন তিনি। রাদনিকি নিসের হয়ে তখন খেলতেন। খেলার পাশাপাশি তিনি খণ্ডকালীন ইলেক্ট্রেশিয়ান হিসেবেও কাজ করতেন। তার বাবা ছিলেন একজন মুদির দোকানদার। সেই দোকানেও বসে বাবার কাজে সাহায্য করতেন পাভকভ।

২০১৭ সালের জানুয়ারি মাসে রাদনিকি নিসের হয়ে এক মৌসুমে পাঁচ গোল করেন। রেড স্টার তখন তাকে দুই কিস্তিতে তিন লাখ ইউরো দিল। কিন্তু রেড স্টারের হয়ে তেমন কিছুই করতে পারেননি। ফলে, আবারও ফিরে আসতে হয় রাদনিকিতে। তবে এবার ৩৩ ম্যাচে ২৩ গোল করে নজর কাড়েন। এরপরই তিনি আবারও ডাক পান রেস্ট স্টারের মূল দলে।

আর এবার তো নায়কই বনে গেলেন এই ইলেক্ট্রিশিয়ান। লিভারপুলের মতো ঐতিহ্যবাহী দলের বিপক্ষে জোড়া গোল করে এখন তিনি বীরদের একজন। তাও যে সেই গোলরক্ষকের বিপক্ষে গোল করেননি পাভকভ। বিশ্বের সবচেয়ে দামি গোলরক্ষক ৬০ মিলিয়ন ইউরো মূল্যের এলিসনের বিপক্ষে গোল করেছেন। এ জন্যই বোধহয় আলোচনায় তিনি।

সার্বিয়ানরা একটি কৌতুকও বের করে ফেলেছে তাকে নিয়ে। ‘তার বাড়তি সময়ে যখন সে ইলেক্ট্রিকাল জিনিসপত্র মেরামত করতো না, ঠিক সেই সময়েই সে লিভারপুলের বিপক্ষে খেললো এবং জোড়া গোল করলো, যে দলের রয়েছে ৬০ মিলিয়ন ইউরোর গোলরক্ষক।’



প্রকাশক ও সম্পাদক : শাহিন রহমান

অফিস : ১১৪ নাখালপাড়া, ঢাকা-১২১৫
Email : prothomshomoy@gmail.com