বুধবার , ১৪ নভেম্বর ২০১৮


পথ হারালেই পথ দেখাবেন আমির





অনলাইন ডেস্ক : ‘পথিক তুমি কি পথ হারিয়েছ?’ পথ হারিয়ে ফেললে বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের ‘কপালকুণ্ডলা’ উপন্যাসের এমন কোনো লাইন কেউ আপনাকে বলবে কি-না জানা নেই। তবে আপনি রাস্তাঘাটে চলতে চলতে পথ হারিয়ে ফেললে পাশে পেতে পারেন অন্য কাউকে।

টালিগঞ্জ থেকে বাগবাজার, বেহালা থেকে সল্টলেক, যেখানেই যেতে চান না কেন, পথ হারিয়ে ফেললে আর ভাবনার কিছু নেই। ‘আল ইজ ওয়েল’ বলে একেবারে ঘোড়ার পিঠে চড়ে হাজির হবেন আমির খান।

না, চমকে ওঠার মতো কিছু হয়নি। রাস্তাঘাটে পথ হারিয়ে ফেললে আমিরই আপনাকে জানিয়ে দেবেন সঠিক রাস্তা। অন্তত আগামী দুই সপ্তাহ তো বটেই। তবে এর জন্য হাতে শুধু একটা স্মার্টফোন দরকার৷ ব্যস, আর চিন্তা নেই৷ মিস্টার পারফেকশনিস্ট এসে হাজির হবেন আপনার সামনে৷ ঘোড়ায় চেপে সেজেগুজে আসবেন তিনি৷ আর তিনিই আপনাকে পথ দেখাবেন৷ তবে স্মার্টফোনে।

‘থাগস অব হিন্দোস্তান’-এর প্রচারের জন্য কলকাতা বা পশ্চিমবঙ্গে তিনি যে আসছেন, এমনটা নয়। তবে ছবির প্রচারের অংশ হিসাবেই আপনাকে পথ চিনিয়ে দেবেন আমির।

গুগল ম্যাপের কোনো ‘লোকেশন’ সার্চ করলে সাধারণত একটা তিরের মতো চিহ্ন ভেসে ওঠে৷ সেই চিহ্নের পাশেই এ বার থেকে থাকবেন আমির খান, অন্তত দু’ সপ্তাহ।

গুগল ম্যাপ আপ়ডেট করতে হবে প্লে স্টোরে গিয়ে। সেখানে সার্চ বারে ডিরেকশনে ক্লিক করলেই ‘থাগস অফ হিন্দোস্তান’র ফিরাঙ্গির বেশে তিরের সামনে আসবেন আমির৷ একটা ডায়ালগ বক্স খুলে যাবে। আর তাতে লেখা থাকবে ‘চলো’। পাশেই থাকবে আমিরের ওই ছবিটি।

১৭৯৫ সালে একদল ‘ঠগ’ ব্রিটিশ ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির বিরুদ্ধে ভারতের স্বাধীনতার জন্য লড়াই করেছিল। সেই গল্প নিয়েই যশরাজ ফিল্মসের ব্যানারে বিজয়কৃষ্ণ আচার্য ‘থাগস অব হিন্দুস্তান’ বানিয়েছেন। আগামী ৮ নভেম্বর ছবিটি মুক্তি পাবে।

ছবিতে আমির ফিরাঙ্গি মাল্লাহ নামক এক ব্যক্তির চরিত্রে অভিনয় করেছেন যাকে ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানি ‘থাগস’-দের বিরুদ্ধে নিয়োগ করে। সেই চরিত্রটিকেই দেখা যাবে গুগল ম্যাপের সামনে।



প্রকাশক ও সম্পাদক : শাহিন রহমান

অফিস : ১১৪ নাখালপাড়া, ঢাকা-১২১৫
Email : prothomshomoy@gmail.com